কলহ মীমাংসার কথা বলে বন্ধুদের দিয়ে স্ত্রীকে ‘গণধর্ষণ’

রাজধানীর খিলগাঁওয়ে বন্ধুদের দিয়ে নিজের স্ত্রীকে ধর্ষণ করানোর অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় আজ রোববার দুপুরে ভুক্তভোগী নারী খিলগাঁও থানায় স্বামীসহ ছয় জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন।

জানা গেছে, অভিযুক্ত ওই স্বামীর নাম আয়উব আলী (৬৫)। পারিবারিক কলহ মেটানোর কথা বলে গত মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) তিনি তার স্ত্রীকে খিলগাঁওয়ে বন্ধুর বাসায় ডেকে নেন। সেখানে ওই নারীকে ধর্ষণ করা হয় বলে মামলার অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে।

মামলার বিষয়টি দৈনিক আমাদের সময়কে নিশ্চিত করেছেন খিলগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মো. ফারুকুল আলম।।

ফারুকুল আলম বলেন, ‘আজ রোববার দুপুরে ভুক্তভোগী নারী থানায় এসে ধর্ষণ মামলা করেছেন। ধর্ষণের ঘটনার পর ঢাকা মেডিকেলের ওয়ানস্টাফ ক্রাইসিস সেন্টারে যান ওই নারী ও তার স্বজনেরা। সেখানে বাসার ঠিকানা না থাকায় আমাদেরকে হাসপাতাল থেকে কিছু জানানো হয়নি। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘পূর্বের কোনো একটি মামলার মীমাংসা করার কথা বলে ওই নারীকে তার স্বামী ডেমরা এলাকা ডেকে নেয়। এরপর তার এক বন্ধুর বাসায় নিয়ে তাকে গণধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন ওই নারী।’

ভুক্তভোগী নারীর খালাত ভাই জানান, তার বোন আয়উব আলীর দ্বিতীয় স্ত্রী। পারিবারিক কলহের জেরে গত এক মাস ধরে রাজধানীর ধোলাইপাড়ে একটি বাসায় তার বোন আলাদা থাকছিল।

তিনি আরও জানান, গত ১২ জানুয়ারি দুপুর ২টার দিকে আয়উব পরিবারিক কলহ মেটানোর কথা বলে তার বোনকে খিলগাঁও থানাধীন সিপায় পাড়া ট্যাম্পু স্ট্যান্ডের পাশে কালুন নামের এক বন্ধুর বাসায় নেয়। সেখানে নিয়ে কিছু বুঝে ওঠার আগেই আয়উব তার পাঁচ বন্ধুকে দিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করায়।

 

এমন আরো সংবাদ

Back to top button