ট্রাম্প সমর্থকরা রাস্তায় নামার পর সহিংসতা ছড়িয়েছে ওয়াশিংটনে

ভোটের ফলপ্রকাশের পরেও উত্তপ্ত যুক্তরাষ্ট্র। জো বাইডেনের কাছে পরাজয়ের পর থেকেই কারচুপির তত্ত্বে অটল ডোনাল্ড ট্রাম্প। এমনকি আদালতে একের পর এক নিজের পক্ষের অভিযোগ খারিজ হয়ে গেলেও থামছেন না প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

প্রিয় প্রেসিডেন্টের সুরে সুর মিলিয়েই নির্বাচন খারিজ ও ট্রাম্পের শাসনের মেয়াদ আরও চার বছর বৃদ্ধির দাবিতে গত শনিবার ওয়াশিংটনে পথে নামেন তার অনুগামীরা। মিছিলের বিরোধিতায় পথে নামেন বিরোধীদের একাংশ।

পরেই দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। গুলিও চলে। ওইদিনের ঘটনায় আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন। ছুরিবিদ্ধ হয়ে জখম হয়েছেন আরও চার জন। তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

সিবিএস নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওয়াশিংটনে রাত্রীকালীন সহিংসতায় বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। অন্তত আটজন পুলিশ কর্মকর্তা আহত হয়েছেন এবং চারজন বেসামরিক নাগরিক ছুরিকাহত হয়েছেন।

স্থানীয় সময় রবিবার পুলিশ জানিয়েছে, সহিংসতার সঙ্গে জড়িত সন্দেহ ৩৩ জনকে আটক করা হয়েছে।

পুলিশ বলছে, ওয়াশিংটনের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে হোয়াইট হাউসের নিকটস্থ ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার প্লাজার কাছে ছুরিকাঘাতের ঘটনা ঘটেছে। রাত ৯টার দিকের ওই ঘটনায় কারো প্রাণ সংশয় নেই।

পুলিশের দাবি, তর্ক-বিতর্কের একপর্যায়ে ছুরিকাঘাতের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে আটকদের একজন ২৯ বছর বয়সী ফিলিপ জনসন। তার কাছ থেকে অস্ত্র পেয়েছে পুলিশ। আটকদের সবাই ডোনাল্ড ট্রাম্পের সমর্থক।

সূত্র: সিবিএস নিউজ

এমন আরো সংবাদ

Back to top button