মানসিকভাবে ধর্ষণ করা হচ্ছে, দাবি কঙ্গনার

নতুন কৃষি নীতির প্রতিবাদে উত্তাল ভারত। নতুন এ আইনের প্রতিবাদে দিল্লিমুখী হয়েছেন দেশটির লাখ লাখ কৃষক। কৃষকদের এ আন্দোলনে সুর মিলিয়েছেন বলিউড তারকা প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, দিলজিৎ দোসাঞ্জসহ অনেকেই। তবে উল্টোপথে হাঁটছেন কঙ্গনা রানাউত ও সানি দেওলসহ গুটি কয়েক তারকা। তারা গাইছেন মোদি সরকারের সাফাই। আর এ নিয়ে সমালোচনার মুখে পড়তে হচ্ছে কঙ্গনাদের।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জিনিউজের খবরে বলা হয়, কৃষক আন্দোলন নিয়ে পক্ষ-বিপক্ষ নেওয়ায় ইতিমধ্যেই কঙ্গনা ও দিলজিতের মধ্যে শুরু হয়েছে বাগযুদ্ধ। এ যুদ্ধে থেমে নেই তাদের ভক্তরাও। দিলজিতের ভক্তরা কঙ্গনাকে নিয়ে তৈরি করেছেন মিম, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যা ভাইরাল হয়ে গেছে। আর বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছেন কঙ্গনা।

কঙ্গনা রানাউত তার টুইটার অ্যাকাউন্টে দেওয়া পোস্টে লিখেন, ‘আমি যা বলেছি তা গোয়েন্দারা আজ বলেছে, কিন্তু লোকজন এমনভাবে ট্রোল করছে যেন দিলজিৎ কঙ্গনাকে ধর্ষণ করেছেন। একজন স্বাধীনচেতা সিঙ্গেল নারীকে আবেগগত ও মানসিকভাবে ধর্ষণ করা হচ্ছিল, সেখানে চিয়ার লিডাররা হাততালি দিচ্ছিল। আমি দেখলাম, তোমরা সবাই…’।

কঙ্গনা রানাউত বর্তমানে ‘থালাইভি’র শ্যুটিং করছেন। তিনি প্রতিদিন ১২-১৪ ঘণ্টা শ্যুটিং করছেন বলে জানিয়েছেন। গতকাল শুক্রবার ‘থালাইভি’র শুটিং রেখে একটি ইভেন্টে যোগ দিতে হায়দরাবাদ থেকে চেন্নাইয়ে গেছেন তিনি।

কঙ্গনার নতুন মন্তব্যের বিষয়ে এখনো মুখ খুলেননি দিলজিৎ। এর আগে কঙ্গনা তাকে জোহরের পোষ্য বলেছিলেন। তখন তিনি জানিয়েছেন, বলিউডওয়ালারাই তার কাছে যান কাজের জন্য, তিনি কখনো বলিউডের কারও কাছে কাজ চাইতে যান না। তার আগে কৃষক আন্দোলন নিয়ে সরকারের পক্ষে অর্থাৎ কৃষকদের বিপক্ষে দাঁড়ানোয় কঙ্গনার সমালোচনা করেছিলেন দিলজিৎ।

এমন আরো সংবাদ

Back to top button