কৃষক বিক্ষোভ থেকে নজর ফেরাতে পাকিস্তানকে আক্রমণ করবে দিল্লি?

ভারতের কৃষক বিক্ষোভে বেসামাল মোদি সরকার। এই বিক্ষোভ থেকে নজর ঘোরাতে এবার পাকিস্তানকে আক্রমণ করতে পারে নয়াদিল্লি- এমন আশঙ্কা করছে পাকিস্তান। আশঙ্কা রয়েছে সার্জিকাল স্ট্রাইকেরও। এ জন্য পাকিস্তান সেনাবাহিনীকে বিশেষভাবে সতর্ক করা হয়েছে।

পাকিস্তানের একাধিক সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে কলকাতার প্রভাবশালী দৈনিক আনন্দবাজার পত্রিকা জানায়, যে কোনও সময়েই সার্জিকাল স্ট্রাইক কিংবা নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে ভারতীয় সেনারা পাকিস্তানকে আক্রমণ করতে পারে। এমন আশঙ্কাতেই পাকিস্তান সেনাবাহিনীকে বিশেষভাবে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে। তবে, এ নিয়ে পাকিস্তান সেনাবাহিনী কিংবা সরকারি স্তরের কেউ মুখ খোলেন নি বলেও জানানো হয় ওই প্রতিবেদনে।
এদিকে, পাকিস্তানের প্রথম সারির সংবাদমাধ্যম জিয়ো নিউজের একটি খবরে বলা হয়েছে, ভারতে কৃষক বিক্ষোভে সংখ্যালঘুরা অত্যাচারিত হচ্ছে। দেশের ভেতর ও বাইরে চাপের মধ্যে পড়ে এ বিষয় থেকে নজর ঘোরাতে চাইছে মোদী সরকার। ডোকলাম ও লাদাখে ‘হারের পরে’ এখন পরিস্থিতি থেকে নজর ঘোরাতেই ফের সীমান্তে শান্তি নষ্ট করতে চাইছে নয়াদিল্লি।
প্রভাবশালী পাকিস্তানি সাংবাদিক সলমন মাসুদও একই বিষয় নিয়ে টুইট করেন। তিনি লিখেছেন, ‘পাকিস্তানের নিরাপত্তাবাহিনীর সূত্রে জানা গেছে, ভারতের সঙ্গে পূর্ব সীমান্তে সেনাবাহিনীকে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে। ভারত সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের চেষ্টা চালাতে পারে অথবা সীমান্তে সংঘর্ষের পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে পারে।’
আনন্দবাজারের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পাকিস্তানের এই আশঙ্কা নিয়ে নয়াদিল্লি অবশ্য এখনও পর্যন্ত কোনও প্রতিক্রিয়া দেয়নি। ২০১৬ সালে উরিতে জঙ্গি হামলার পরে ২৯ সেপ্টেম্বর সার্জিকাল স্ট্রাইক করেছিল ভারত। নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে জঙ্গিঘাঁটি ধ্বংসের দাবি করেছিল নরেন্দ্র মোদী সরকার।

এমন আরো সংবাদ

Back to top button