শেরে বাংলা নগর থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আরিফুল ইসলাম হৃদয়ের বিরুদ্ধে ইয়াবা সেবন ও বিক্রির অভিযোগ

স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আরিফুল ইসলাম হৃদয়

নিজস্ব প্রতিবেদক:

শেরেবাংলা নগর থানা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক, বর্তমান স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আরিফুল ইসলাম হৃদয়ের বিরুদ্ধে মাদক সেবন ও বানিজ্যের অভিযোগ উঠেছে। সংবাদ এখনের হাতে আসা পাঁচ মিনিট এগারো সেকেন্ডের একটি ভিডিও ক্লিপে দেখা যায় নিজের সঙ্গী সাথীদের ইয়াবা সেবনে মত্ত আরিফুল ইসলাম হৃদয়। শেরেবাংলা নগর থানা ছাত্রলীগের সাবেক এই নেতার বিষয়ে স্থানীয়রা জানান, শুধু মাদক সেবন ও বিক্রি নয়, এলাকায় নানা অপকর্মের সাথে জড়িত তিনি। এর আগে তালতলা লেগুনা স্ট্যান্ড নিয়ন্ত্রণ নিয়ে প্রতিপক্ষের সাথে বিবাদে জড়িয়ে পরে হৃদয়। সেসময় প্রকাশ্য গোলাগুলির ঘটনা তার বিরুদ্ধে অস্ত্র মামলা হয়। পরে প্রভাব খাটিয়ে সেই মামলা থেকে বেঁচে যায় সে।

অনুসন্ধানে জানা যায় তার বিরুদ্ধে রাজধানীর বিভিন্ন থানায় পাঁচটি মাদক মামলা রয়েছে। মাদক সেবনের কারনে পারিবারের পক্ষ থেকে তাকে ছয় মাস মাদক নিরাময় কেন্দ্র রাখা হলেও শুধরায়নি আরিফুল ইসলাম হৃদয়। নিরাময় কেন্দ্র থেকে চলে আসার কয়েক মাসের মধ্যেই আবারও মাদক সেবন শুরু করে সে।। আবারো সক্রিয় করে তার ইয়াবা বিক্রির সিন্ডিকেট। আরিফুলের মাদক সিন্ডিকেটরে ইয়াবা বানিজ্যের কারনে শেরেবাংলা নগর থানা এলাকায় ইয়াবা এখন সহজলভ্য হয়ে উঠেছে। উঠতি বয়সের অনেক কিশোররা এখন ইয়াবা আসক্ত। রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকেও ইয়াবা কিনতে শেরেবাংলা নগরের আগারগাঁও ও তালতলায় ভীড় করে ইয়াবা সেবীরা। যার ফলে এই এলাকায় বেড়ে চুরি-ছিনতাইসহ নানা অপকর্ম। তার আপন ভাই সাকিবুল ইসলাম উদয় জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত। চাঁদপুর থেকে উঠে আসা আরিফুল ইসলাম হৃদয়ের পরিরারও স্বাধীনতার পক্ষের রাজনীতি সাথে সম্পৃক্ত নয়। তার বিরুদ্ধে ওঠা নানা অপকর্মের অভিযোগ ও ভিডিও ক্লিপ নিয়ে কথা বলতে আরিফুলের সাথে যোগাযোগ করা হলেও বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে রাজি হননি তিনি।

 

 

এমন আরো সংবাদ

Back to top button