‘৫০/১০০ টাকা বেশি খরচ হলে টাকা পয়সা কমে যায় না’

পরিচিত একজন ১ লক্ষ ২৫ হাজার টাকা দিয়ে একটা রেফ্রিজারেটর কিনেছেন। পয়সাওয়ালা মানুষ, কিনতেই পারেন। সেলস এক্সিকিউটিভ ক্যাশ ভাউচার, ওয়ারেন্টি কার্ড এবং অন্যান্য সার্ভিসিং ইস্যু বুঝিয়ে দিলেন। সবকিছু ঠিকই ছিল কিন্তু সমস্যাটা বাঁধলো অন্য জায়গায়।

রেফ্রিজারেটরটি বাসায় নিয়ে যাওয়ার জন্য একটি ভ্যান ডাকা হল। ভ্যান চালক পরিবহনের জন্য ৪০০ টাকা চাইলেন। কারণ হিসেবে বললেন, তিনতলায় উঠাতে হবে। কিন্তু সদ্য রেফ্রিজারেটরটির ক্রেতা উনাকে ২০০ টাকা দেবেন, কোনোভাবেই তিনি ৪০০ টাকা দেবেন না। এটা দেখে আমার একটু অবাক লাগলো। উনি ১ লক্ষ ২৫ হাজার টাকা দিয়ে ফ্রিজ কিনলেন। যদি প্রয়োজন হতো, তাহলে ১ লক্ষ ৪৫ হাজার টাকা দিয়ে কিনতেও তার সমস্যা ছিল না। কিন্তু মাত্র ২০০ টাকার জন্য উনি যেভাবে ভ্যান চালকের সাথে তর্ক করা শুরু করলেন, একটু অবাক করার মতোই ছিল।

এই বিষয়গুলো আমাদের অনেকের মধ্যেই দেখা যায়। সুপার শপ থেকে আমরা কোন ধরনের দরদাম ছাড়াই (সেখানে দরদামের সুযোগও নাই) ৫০০০ টাকার বাজার করার পর রিক্সাওয়ালাকে ২০ টাকার জায়গায় ৩০ টাকা ভাড়া দিতে গেলেই মনে করি, আমাদের অনেক ক্ষতি হয়ে গেল। ১০/২০ টাকার জন্যই অনেকে তুমুল ঝগড়া বাঁধিয়ে দেন।
আমাদের এই মানসিকতার পরিবর্তন প্রয়োজন। আপনি নিশ্চিত থাকেন ৫০/১০০ টাকা বেশি খরচ হলে, আপনি আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হবেন না কিংবা আপনার টাকা পয়সাও কমে যাবে না। বরং খেটে খাওয়া মানুষগুলোর কিছুটা উপকার হবে।

Back to top button