সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যায় এখনও শীর্ষ আটে বাংলাদেশ

Habibur Rahman Rajসংবাদ এখন ডেস্ক: দু’মাস আগেও বাংলাদেশে মানুষের মনে করোনাভাইরাস সংক্রমণের যে ভয় ছিল, সাম্প্রতিক দিনগুলোতে সেটি অনেকটাই কমে এসেছে বলে মনে করা হচ্ছে। বিশেষজ্ঞদের সতর্কবার্তা সত্ত্বেও রাস্তাঘাটে অনেককেই মাস্ক ছাড়া ঘুরতে দেখা গেছে। স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতে প্রশাসন কড়া অবস্থানে থাকলেও জনগণের সচেতনতার অভাবে কমছে না সংক্রমণের হার। পরিসংখ্যান বলছে, সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যায় এখনও বিশ্বের মধ্যে আট নম্বরে রয়েছে বাংলাদেশ।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের পরিসংখ্যানে দেখা যাচ্ছে, বাংলাদেশে এই মুহূর্তে সক্রিয় করোনা রোগী রয়েছেন ১ লাখ ৯ হাজার ৮৯৬ জন। এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে কেবল ভারতেই বাংলাদেশের চেয়ে বেশি সক্রিয় রোগী রয়েছে।

গত ১২ জুলাই জাগোনিউজে ‘সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যায় বিশ্বে ৭ম বাংলাদেশ’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছিল। সেটিতে বাংলাদেশে ১১ জুলাই পর্যন্ত শনাক্ত ও সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা জানানো হয়েছিল।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের পরিসংখ্যান বলছে, এরপর ১২, ১৩ ও ১৪ জুলাই পর্যন্ত বাংলাদেশে প্রতিদিনই সক্রিয় রোগীর সংখ্যা কমেছে। সবশেষ ১৪ জুলাই দেশে সক্রিয় রোগী ছিলেন ৮৪ হাজার ৮০৬ জন। এরপর থেকে আবার প্রতিদিনই বাড়ছে এর সংখ্যা। আগস্ট মাসের প্রথমদিনই দেশে সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা প্রথমবার এক লাখের কোটা পেরোয়। বাংলাদেশে এখনও সক্রিয় করোনা রোগী রয়েছে প্রায় ১ লাখ ১০ হাজার।

বাংলাদেশে এ পর্যন্ত মোট করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৬৬ হাজার ৪৯৮ জন, মারা গেছেন ৩ হাজার ৫১৩ জন। আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন অন্তত ১ লাখ ৫৩ হাজার ৮৯ জন। মোট আক্রান্তের সংখ্যায় বিশ্বের মধ্যে ১৬তম অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ।

এমন আরো সংবাদ

Back to top button