‘অপ্রতিরোধ্য সেনাবাহিনী’ গঠনের ঘোষণা কিমের

দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার পর ‘অপ্রতিরোধ্য সেনাবাহিনী’ গঠনের ঘোষণা দিলেন উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জংউন। উত্তর কোরিয়া অভিযোগ করে আসছে, যুক্তরাষ্ট্র তাদের বিরুদ্ধে শত্রুতাপূর্ণ নীতি গ্রহণ করেছে। রাজধানী পিয়ংইয়ংয়ে সোমবার বিরল এক প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম প্রদর্শনীতে গিয়ে কিম এ ঘোষণা দেন। উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে মঙ্গলবার বিবিসি এ খবর দিয়েছে।

কিম বলেছেন, উত্তর কোরিয়ার অস্ত্রের উন্নয়ন নিজেদের প্রতিরক্ষার জন্য, কারও সঙ্গে যুদ্ধের জন্য নয়।

উত্তর কোরিয়া সম্প্রতি দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করে। পরীক্ষার সময় দেশটি জানায়, পরীক্ষা করা ক্ষেপণাস্ত্র সুপারসনিক ও বিমানবিধ্বংসী। উত্তর কোরিয়ার প্রতিবেশী দক্ষিণ কোরিয়াও সম্প্রতি সাবমেরিন থেকে উৎক্ষেপণযোগ্য নিজেদের তৈরি ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করে।

বিবিসি বলেছে, উত্তর কোরিয়ার রাজধানী পিয়ংইয়ংয়ে অনুষ্ঠিত ‘আত্মরক্ষা ২০২১’ নামের প্রদর্শনীতে দেওয়া বক্তব্যে কিম জংউন দক্ষিণ কোরিয়ার সীমান্তে সেনাবাহিনীর শক্তি বাড়ানোর কথা বলেন। তবে তিনি এও বলেন, উত্তর কোরিয়া প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে লড়াই করতে চায় না। কিম জংউন বলেন, ‘আমরা কারও সঙ্গে যুদ্ধে যাওয়ার বিষয়ে আলোচনা করছি না। বরং যুদ্ধ থেকে নিজেদের রক্ষা করতে এবং জাতীয় সার্বভৌমত্ব রক্ষার বিষয় নিয়ে আমরা কথা বলছি।’

কিম যখন বক্তব্য দেন, তখন তার পাশে ট্যাংকসহ বিভিন্ন ধরনের সামরিক সরঞ্জামের সারি ছিল। কিম বলেন, যুক্তরাষ্ট্র উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার মধ্যে উত্তেজনা উসকে দিচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্র উত্তর কোরিয়ার শত্রু নয়, এমন কথা বিশ্বাস করার ‘যুক্তিসঙ্গত কোনো কারণও নেই’।

 

এমন আরো সংবাদ

Back to top button