‘দ্বিতীয় পদ্মা সেতু’ করতে চান মুসা

সুইস ব্যাংকে আটকে থাকা ৮২ মিলিয়ন ডলার হাতে পেলে আলোচিত ব্যবসায়ী মুসা বিন শমসের দ্বিতীয় পদ্মা সেতু করে দিতে চেয়েছেন বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের যুগ্ম-পুলিশ কমিশনার হারুন-অর-রশীদ। গতকাল মঙ্গলবার ডিবি কার্যালয়ে মুসাকে তিন ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ শেষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান তিনি।

হারুন-অর-রশীদ বলেন, ‘জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ভুয়া অতিরিক্ত সচিব আব্দুল কাদেরের বিষয়ে বিকেলে মুসা বিন শমসেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদের একপর্যায়ে মুসা বিন শমসের বলেছেন, তার সুইস ব্যাংকে ৮২ মিলিয়ন ডলার আটকে আছে। সেই টাকা পেলে তিনি পুলিশকে ৫০০ কোটি টাকা দিতে চেয়েছেন। এ ছাড়া তিনি দ্বিতীয় পদ্মা সেতু ও দুদকের ভবনও করে দিতে চেয়েছেন।’

ডিবির এ কর্মকর্তা বলেন, ‘মুসা বিন শমসেরকে আমার কাছে রহস্যময় মানুষ মনে হয়েছে। প্রতারক আব্দুল কাদের একজন নাইন পাস লোক, তাকে মুসা বিন শমসের উপদেষ্টা বানালেন কেন? ২০ কোটি টাকার চেক দিলেন কেন? উনি বলেছেন, লাভ দেবেন। কিন্তু উদ্দেশ্য আমরা জানি না। মুসা সাহেব দেখেছেন আব্দুল কাদের বড় বড় লোকের সঙ্গে কথা বলেন। বাস্তবে আব্দুল কাদেরের সঙ্গে উনার অনেক সম্পর্ক রয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘মুসা বিন শমসেরের দাবি, তিনি নিজে প্রতারিত হয়েছেন। নিজে মামলা করবেন বলেছেন। আমরা সবকিছু তদন্ত করছি। আমরা যেটা করার দরকার সেটাই করব। তিনি মামলা করলে সেটাও তদন্ত করব। মুসা সাহেব কাদেরের সম্পর্কে বেশি জানেন না বললেও আমরা তার সঙ্গে কাদেরের অজস্র কথপোকথন পেয়েছি।’

সম্প্রতি অতিরিক্ত সচিব পরিচয়দানকারী আবদুল কাদের নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে ডিবি। তার সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার বিষয়ে জানতেই মুসা বিন শমসেরকে মঙ্গলবার বিকেলের দিকে মেরুন ডিবি কার্যালয়ে ডাকা হয়। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন তার স্ত্রী শারমিন চৌধুরী ও ছেলে জুবেরী হাজ্জাজ। গোয়েন্দা গুলশান বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) মশিউর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

 

এমন আরো সংবাদ

Back to top button