আইনের লোক পরিচয়ে স্বর্ণ ছিনতাইয়ের চেষ্টা, আটক ৩

কর্মচারীর যোগসাজশে আইনের লোক পরিচয়ে মাদারীপুরের শিবচরে স্বর্ণ ব্যবসায়ীর কাছ থেকে স্বর্ণ ছিনতাইয়ের চেষ্টার ঘটনা ঘটেছে। এ সময় হাতেনাতে আটক দুই ছিনতাইকারীর দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে অন্যতম পরিকল্পনাকারী ওই কর্মচারীকেও আটক করেছে পুলিশ।

ওই ব্যবসায়ী জানিয়েছেন, ছিনতাইয়ের ঘটনা চলাকালে কিশোর নামের ওই কর্মচারী ওই ব্যবসায়ীর বাসায় বসেই খাবার খাচ্ছিলেন ও মোবাইলে ঘটনা তদারকি করছিলেন। এই ঘটনায় দুই সহোদর ও তাদের চাচাতো, খালাতো ভাইসহ আরও কয়েকজন জড়িত বলে জানিয়েছে পুলিশ ।

জানা গেছে, জেলার শিবচর পৌর বাজারের স্বর্ণ ব্যবসায়ী নির্মল পালের ছোট ভাই দিনেশ পাল একটি ভাড়ার মোটরসাইকেলে চড়ে রোববার বিকেলে ফরিদপুর যাচ্ছিল। তার সঙ্গে চার ভরি স্বর্ণালংকার ছিল, যা সে হলমার্ক করানোর জন্য নিয়ে যাচ্ছিল। মোটরসাইকেলটি ঢাকা-খুলনা এক্সপ্রেস হাইওয়ের শিবচরের সূর্য্যনগর বাজার পার হওয়ার পর দুটি মোটরসাইকেল এসে তার গাড়ির গতিরোধ করে।

ওই দুটি মোটরসাইকেল আরোহীরা নিজেদের আইনের লোক (আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য) পরিচয় দিয়ে দিনেশের কাছে অবৈধ মাল আছে বলে দেহ তল্লাশি করে। এ সময় তারা দিনেশকে মোটরসাইকেলে তোলার চেষ্টা করে ও চালককে মারধর করে। তাদের চিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে এসে প্রতিরোধ করলে সুযোগ বুঝে দিনেশ সূর্য্যনগর বাজারের স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের খবর দেন।

স্থানীয় স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা দ্রুত ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন ও দত্তপাড়া পুলিশ ফাঁড়িতে খবর দেন। পরে পুলিশ এসে রিফাত সিকদার (২০) ও রাজিব সিকদারক (২৬) নামে দুই ছিনতাইকারীকে হাতেনাতে আটক করে। তবে মোটরসাইকেল দুটি নিয়ে বাকি ছিনতাইকারীরা পালিয়ে যায়।

রাতে ছিনতাইকারীদের শিবচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মিরাজ হোসেনের কাছে সোপর্দ করলে বের হয়ে আসে এসব তথ্য। রিফাত ও রাজিব পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে যে এ ঘটনার মূল হোতা ও তথ্য দাতা দিনেশের দোকানের কর্মচারী কিশোর সরকার (২০)।

আটক দুই ছিনতাইকারী জানিয়েছে, দিনেশ দোকান থেকে রওনা দেওয়ার পরই কিশোর মোবাইলে আটক রাজিব সিকদারের ছোট ভাই রনি সিকদারকে জানায়। রনি তার বড় ভাই রাজিব, চাচাতো ভাই রিফাত ও খালাতো ভাই জহরুল মুন্সীকে দিয়ে ছিনতাইয়ের চেষ্টা করে। রাতেই পুলিশ কিশোর সরকারকে আটক করেছে। কিশোর ৬ বছর ধরে ওই দোকানে কর্মরত ছিল। আটক তিনজনই প্রাথমিকভাবে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে পুলিশের কাছে।

আটক কিশোর জেলার শিবচরের দক্ষিন বহেরাতলা ইউনিয়নের নমোকান্দি গ্রামের বিকাশ সরকারের ছেলে। অপর আটক দুই চাচাতো ভাই রাজিব সিকদার উপজেলার দত্তপাড়া ইউনিয়নের চরবাচামারা গ্রামের মজিবর সিকদারের ছেলে ও রিফাত সিকদারের একই বাড়ির ইমারত সিকদারের ছেলে।

শিবচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মিরাজ হোসেন জানিয়েছেন, আটক দুই ছিনতাইকারীর স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে ওই দোকানের কর্মচারী কিশোরকে আটক করলে সে সব স্বীকার করেছে। মূলত কিশোরই এই চক্রটিকে খবর দিয়েছিল। এ ঘটনায় মামলা প্রক্রীয়াধীন রয়েছে। বাকিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

 

এমন আরো সংবাদ

Check Also
Close
Back to top button