এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা না হলে যেভাবে মূল্যায়ন

করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় চলতি বছরের শেষের দিকে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা গ্রহণের পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। সেই হিসেবে পরীক্ষার সম্ভাব্য তারিখ হিসেবে এসএসসি বা সমমানের পরীক্ষা জন্য নভেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহ ও এইচএসসি পরীক্ষার জন্য ডিসেম্বরের প্রথম নির্ধারণ করেছে মন্ত্রণালয়। বৃহস্পতিবার এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘কোভিড-১৯ পরিস্থিতি অনুকূল হলে সীমিত পরিসরে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণপূর্বক সংক্ষিপ্ত সিলেবাসের আলোকে গ্রুপ ভিত্তিক তিনটি নৈর্বাচনিক বিষয়ের ওপর পরীক্ষার সময় ও নম্বর দুটোই হ্রাস করে পরীক্ষা গ্রহণ করার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। সম্ভাব্য তারিখ এসএসসি ও সমমানের জন্য নভেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহ এবং এইচএসসি পরীক্ষার জন্য ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহ নির্ধারণ করা হয়েছে।’

 

তবে এরই মাঝে পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে ভিন্ন উপায় শিক্ষার্থীদের মূল্যায়নের কথা জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘যদি করোনা পরিস্থিতির কারণে পরীক্ষা গ্রহণ সম্ভব না হয়, তাহলে পরীক্ষার্থীদের জেএসসি, জেডিসি, এসএসসি বা সমমান পরীক্ষার নম্বরের ভিত্তিতে তাদের সাবজেক্ট ও অ্যাসাইনমেন্টের মাধ্যমে অথবা শুধুমাত্র সাবজেক্ট ম্যাপিংয়ের মাধ্যমে ফলাফল নির্ধারণ করা হবে।’

শিক্ষামন্ত্রীর মতে, ‘পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষায় গ্রুপভিত্তিক অ্যাসাইনেমেন্টের মাধ্যমে পরীক্ষার্থীদের মূল্যায়ন করা হবে। এসএসসিতে ২৪টি ও এইচএসসিতে নৈর্বাচনিক বিষয়ে মোট ৩০টি অ্যাসাইনমেন্ট করতে হবে শিক্ষার্থীদের। বাংলা, ইংরেজি, গণিত এমন আবশ্যিক বিষয় ও চতুুর্থ বিষয়গুলোর ওপর পরীক্ষার্থীদের কোনো অ্যাসাইনমেন্ট করতে হবে না।’

এমন আরো সংবাদ

Back to top button