গাইবান্ধায় উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদককে হত্যা

গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এইচ এম আশিকুর রহমান রকিকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে একদল দুর্বৃত্ত। এ সময় গুরুতর আহত হয়েছেন তার সঙ্গে থাকা সোহেল ও প্লাবন নামে আরও দুইজন। গতকাল রোববার রাত সাড়ে ১০টার দিকে জেলা শহরের পূর্বপাড়ার হালিম বিড়ি ফ্যাক্টরির সামনে এ ঘটনা ঘটে।

২০১৫ সাল থেকে আশিকুর রহমান রকি ফুলছড়ি উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন। আশিকুর রহমান ফুলছড়ি উপজেলার কঞ্চিপাড়া ইউনিয়নের মধ্য কঞ্চিপাড়া গ্রামের মৃত সৈয়দার রহমানের ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, রকি, সোহেল ও প্লাবন মোটরসাইকেলযোগে গাইবান্ধা শহর থেকে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। পথে শহরের পূর্বপাড়ার হালিম বিড়ি ফ্যাক্টরির সামনে গেলে পেছন থেকে একদল সন্ত্রাসী রকিসহ তিনজনকে ছুড়িকাঘাত করে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে গাইবান্ধা জেলা সদর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. আরিফুল ইসলাম রকিকে মৃত ঘোষণা করেন। গুরুতর আহত সোহেল ও প্লাবনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাদের গাইবান্ধা হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

এদিকে, রকির মৃত্যুর খবরে সদর হাসপাতালের সামনে ভিড় করেন দলের নেতাকর্মীসহ তার স্বজনরা। হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার করাসহ তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিও জানান তারা।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহফুজুর রহমান। তিনি বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে দলীয় অন্তর্কোন্দলে এই হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হতে পারে। তবে পুরো ঘটনাটি তদন্ত করে বিস্তারিত জানানো হবে। হত্যাকাণ্ডে জড়িতসহ তার সহযোগীদের চিহ্নিত এবং তাদের গ্রেপ্তারে অভিযান চালাচ্ছি। এ ঘটনায় নিহতের পরিবারের পক্ষে সদর থানায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে।’

 

এমন আরো সংবাদ

Back to top button