‘চোখের পলকে গুলিতে ঝাঁঝরা করে দেয়’

বন্দুকধারীদের হামলায় হাইতির নিহত প্রেসিডেন্ট জোভেনিল মইসের স্ত্রী মার্টিন মইস বলেছেন, চোখের নিমিশে হামলার ঘটনাটি ঘটেছে। সে সময় তার স্বামীকে একটি শব্দও বলার সুযোগ না দিয়ে গুলিতে ঝাঁঝরা করে দেয় তারা। ৭ জুলাই সরকারি বাসভবনে ওই হামলার পর এই প্রথম মার্টিন ওই লোমহর্ষক ঘটনার বিবরণ দিলেন। খবর বিবিসি।

বন্দুকধারীদের গুলিতে মারাত্মক আহত হন মার্টিনও। যুক্তরাষ্ট্রের মিয়ামিতে তার চিকিৎসা চলছে। বর্তমানে তার অবস্থা স্থিতিশীল। গত শনিবার টুইটারে তিনি একটি ভিডিওবার্তা পোস্ট করেন। সেখানে তিনি বলেন, চোখের পলকে হামলাকারীরা আমার বাড়িতে প্রবেশ করে এবার আমার স্বামীকে এলোপাতারি গুলি করে। এ অপরাধের কোনো নাম হয় না, কেননা জোভেনিল মইসের মতো একজন প্রেসিডেন্টকে হত্যার অপরাধ সীমাহীন, এমনকি তাকে (জোভেনিল) একটি কথা বলার সুযোগ না দিয়ে গুলি করা হয়।

মার্টিন মনে করেন, রাজনীতিক কারণে তার স্বামীকে হত্যা করা হয়েছে। বিশেষ করে সংবিধান পরিবর্তন বিষয়ে গণভোট যা কি-না প্রেসিডেন্টকে আরও ক্ষমতা দিতে পারত- এ ঘটনার নেপথ্যে তা কাজ করতে পারে। কারও নাম উল্লেখ না করে তিনি বলেন, তারা প্রেসিডেন্টের স্বপ্নকে হত্যা করেছে।

 

এমন আরো সংবাদ

Back to top button