নোয়াখালীতে সিএনজি চালক ও গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার, আটক ১

নোয়াখালীতে পৃথক পৃথক স্থান থেকে পুলিশ দুইটি মরদেহ উদ্ধার করেছে। এ ঘটনায় একজনকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল রবিবার (২৫ এপ্রিল) রাত ১১টায় নোয়াখালীর সেনবাগ থেকে পুলিশ সিএনজি চালিত অটোরিকশা চালক মো.পলাশ (৩৩)-এর মরদেহ উদ্ধার করে। পারিবারিক কলহের জেরে স্ত্রীর ওপর অভিমান করে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে পলাশ। সে একই এলাকার নোয়াব আলীর ছেলে।

সেনবাগ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবদুল বাতেন মৃধা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করেছে। সোমবার সকালে মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

অপরদিকে, রবিবার (২৫ এপ্রিল) রাত সাড়ে ১০টার দিকে জেলার চাটখিল উপজেলা থেকে পুলিশ কোহিনুর আক্তার (২৫) নামে এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে। সে পারিবারিক কলহের জেরে উপজেলার মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের রাজ্জাকপুর ইউনিয়নের বেপারী বাড়িতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। কোহিনুর একই বাড়ির ইয়াকুব হোসেন মোহনের স্ত্রী।

এ ঘটনায় পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার স্বামীকে আটক করেছে। তবে নিহতের স্বজনদের অভিযোগ নিহতের স্বামী মোহন তাকে হত্যা করেছে। চাটখিল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম জানান, পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করেছে এবং স্বামীকে আটক করা হয়েছে। ময়না তদন্ত শেষে আইনানুগ পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

এমন আরো সংবাদ

Back to top button