সাভারে পৃথক দুটি ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেপ্তার ২

সাভারে পৃথক ‍দুটি ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত দুই ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল রোববার রাতে সাভারের ব্যাংক টাউন ও হেমায়েতপুর এলাকা থেকে তাদের আটক করে সাভার মডেল থানা পুলিশ।

পুলিশ জানায়, গত ১৪ এপ্রিল এক নারী তার স্বামীর সাথে ঝগড়া করে রাজধানীর মোহাম্মদপুর থেকে সাভারের ব্যাংক টাউন এলাকায় পূর্বপরিচিত সুলতান মিয়া নামক এক (২৮) ব্যক্তির বাসায় আসেন। সুলতান তাকে বাসা ভাড়া নিয়ে দেওয়া কথা বলে নিজের বাড়িতে আটকে ধর্ষণ করেন। আর এ ঘটনা প্রকাশ করা হলে ওই নারীকে হত্যা করা হবে বলে হুমকি দেন।

তবে ভয়ভীতি উপেক্ষা করে সুলতানকে অভিযুক্ত করে গতকাল রোববার সাভার থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগী। মামলা দায়েরের পর রাতে অভিযান চালিয়ে গ্রেপ্তার করা হয় অভিযুক্ত সুলতানকে। সে পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ থানার সরকারপাড়া গ্রামের রুহল আমিনের ছেলে।

এদিকে, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে বাদশা মিয়া নামের এক (২৬) যুবককে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল রোববার রাতে সাভারের হেমায়েতপুর থেকে তাকে আটক করা হয়।

পুলিশ জানায়,১৫ বছর বয়সী ওই কিশোরীর সাথে বাদশ মিয়া নামক ওই যুবকের পরিচয় হয় বছরখানেক আগে। পরে ওই যুবক ওই তরুণীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে সাভারের বিভিন্ন স্থানে নিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে। পরে ওই তরুণীকে বিয়ে করতে রাজি না হওয়ায় কিশোরী বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা দায়ের করে। রাতেই হেমায়েতপুর থেকে তাকে আটক করে পুলিশ।

এ বিষয়ে সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)তদন্ত সাইফুল ইসলাম বলেন, আটক দুই ধর্ষণকারীকে সকালে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

 

এমন আরো সংবাদ

Back to top button