রমজানের আগেই দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি, অসাধু ব্যবসায়ীদের গ্রেফতার দাবি

রমজান আসার আগেই নিত্যপণ্যের মূল্য বৃদ্ধি করেছে অসাধু ব্যবসায়ীরা। তাদের গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে ভাড়াটিয়া পরিষদ। শনিবার (২৭ মার্চ) সকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে তারা এ মানববন্ধন করে।

মানববন্ধনে ভাড়াটিয়া পরিষদের সভাপতি মো. বাহারানে সুলতান বাহার বলেন, ‘রমজান আসার আগেই নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের বাজারে আগুন লেগেছে। প্রতিদিনই লাগামহীনভাবে বাড়ছে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম। চাল, তেল, ডাল, মাংস সবকিছুরই দাম বৃদ্ধিতে দিশেহারা রাজধানীর সাধারণ ভাড়াটিয়াসহ নিম্ন ও মধ্য আয়ের মানুষ। আপাতদৃষ্টিতে মনে হচ্ছে, বাজরে সরকারের কোনো নিয়ন্ত্রণই নেই। অসাধু ব্যবসায়ী সিন্ডিকেটের কাছে পুরো জাতি আজ অসহায় হয়ে পড়েছে।’

দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির চিত্র তুলে ধরে তিনি আরও বলেন, ‘বাজারে মিনিকেট চাল ৬৫ থেকে ৭০ টাকা, প্রতিলিটার বোতলজাত সয়াবিন তেল ১৪০ থেকে ১৪৫ টাকা, প্রতিকেজি বয়লার মুরগি ১৬০ টাকা, পাকিস্তানি বা সোনালি মুরগী ৩৫০-৩৭০ টাকা, এক কেজি গরুর মাংস ৬০০ টাকা, খাসির মাংস ৯০০ টাকা কেজি, রুই মাছ ৩০০-৩৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। মধ্যবিত্ত পরিবারের পক্ষে এত দাম দিয়ে বাজার করে টিকে থাকা অসম্ভব।’

রমজান সামনে রেখে চিনি, ছোলা, ডালসহ প্রায় সব ভোগ্যপণ্যের দাম প্রতিদিনই অসাধু চক্র বাড়াচ্ছেন বলেও অভিযোগ করেন মানববন্ধনকারীরা।

 

এমন আরো সংবাদ

Check Also
Close
Back to top button