ফ্লয়েডের পরিবার পাচ্ছে ২৭ মিলিয়ন ডলার ক্ষতিপূরণ

যুক্তরাষ্ট্রে পুলিশের হেফাজতে নিহত কৃষ্ণাঙ্গ যুবক জর্জ ফ্লয়েডের পরিবারকে ২৭ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ক্ষতিপূরণ দিয়ে মামলা নিষ্পত্তি করার ঘোষণা দিয়েছে মিনেসোটা অঙ্গরাজ্যের মিনিয়াপোলিস নগর কর্তৃপক্ষ। গত বছর ২৫ মে জাল নোট ব্যবহারের অভিযোগে ফ্লয়েডেকে আটক করা হয়। আটকের সময়ই মিনিয়াপোলিস শহরের পুলিশ সদস্য ডেরেক চৌভিন নিজের হাঁটু দিয়ে সড়কে ফ্লয়েডের ঘাড় চেপে ধরলে তার মৃত্যু হয়।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলছে, ক্ষতিপূরণের ঘোষণার পর ফ্লয়েডের বোন ব্রিজেট ফ্লয়েড এক বিবৃতিতে বলেন, ‘ন্যায়বিচার পাওয়ার এই কঠিন যাত্রায় একটা সমাধানে পৌঁছাতে পেরে আমি ও আমার পরিবার সন্তুষ্ট। আমাদের হৃদয় ভাঙার পরও আমরা জেনে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করছি যে, জর্জ ফ্লয়েড বিশ্বকে দেখিয়েছে কিভাবে বেঁচে থাকতে হয়।’

ফ্লয়েডের পরিবারের আইনজীবী বেনজামিন ক্রাম্প বলেছেন, ‘এটি ছিল যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে মৃত্যুর মামলার সবচেয়ে বড় একটি প্রাক-বিচার নিষ্পত্তি। এই ক্ষতিপূরণ একটি শক্তিশালী বার্তা দেয় যে, কালো জীবনগুলোও গুরুত্বপূর্ণ এবং এই রঙের মানুষের বিরুদ্ধে পুলিশের বর্বরতার অবসান ঘটাতে হবে।’

পুলিশের কারণে জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুতে বিশ্বব্যাপি আন্দোলন হয়। বর্ণবাদ ও অত্যচারের বিরুদ্ধে সারা বিশ্বের মানুষ ঐক্যমত পোষণ করে। যুক্তরাষ্ট্রের ‘ব্ল্যাক লাইভ ম্যাটার্স’ শ্লোগানে দীর্ঘদিন ধরে বিক্ষোভ হয়। ফ্লয়েডকে হত্যার দায়ে চাকরিচ্যুত করা হয় পুলিশ সদস্য ডেরেক চৌভিনকে। আদালতে এখনও তার বিচার চলমান। তবে অভিযুক্ত ডেরেক চৌভিন আদালতকে বলেছেন, তিনি অপরাধী নন। তিনি শুধু তার পুলিশের প্রশিক্ষণকে কাজে লাগিয়েছেন।

 

এমন আরো সংবাদ

Back to top button