বিদ্যুতের সাবেক চিফ ইঞ্জিনিয়ারের ৭ বছরের কারাদণ্ড

অবৈধ সম্পদ অর্জন ও তথ্য গোপনের একটি মামলায় বিদ্যুৎ অফিসের সাবেক চিফ ইঞ্জিনিয়ার একেএম শফিকুল আহসানকে ৭ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আজ মঙ্গলবার ঢাকার ৯ নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক শেখ হাফিজুর রহমান এ রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার সময় দণ্ডিত হাফিজুল রহমান আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

রায়ে দণ্ডিতের ৭ বছরের কারাদণ্ডের মধ্যে দুর্নীতি দমন আইনের ২৬(২) ধারায় ২ বছরের কারাদণ্ড এবং ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দিয়েছেন আদালত। অনা দায়ে আরও এক মাসের বিনা শ্রমে কারাদণ্ডের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

অন্যদিকে একই আইনের ২৭(১) ধারায় ৫ বছরের কারাদণ্ড এবং ৬৯ লাখ ২৬ হাজার ১৯২ টাকা অর্থদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। এ ছাড়া অসৎ উপায়ে অর্জিত ৬৯ লাখ ২৬ হাজার ১৯২ টাকা রাষ্ট্রের অনুকূলে বাজেয়াপ্তের নির্দেশও দিয়েছেন আদালত।

একেএম শফিকুল আহসানের বিরুদ্ধে ৩৫ লাখ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জন এবং ১ কোটি ৭০ লাখ ১২ হাজার ৬৮৩ টাকার সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগে ২০১০ সালের ১ জুন দুদকের সহকারী পরিচালক এসএমএম আখতার হামিদ ভুঁইয়া রাজধানীর রমনা থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলাটি তদন্তের পর ২০১৫ সালের ১৫ অক্টোবর আদালতে একই কর্মকর্তা অভিযোগপত্র দাখিল করেন। পরবর্তীতে আদালত এ মামলায় চার্জগঠনের মাধ্যমে বিচার শুরু করেন। তদন্তে জানা যায়, দণ্ডিতের স্ত্রী ও শ্যালকের নামেই শফিকুল আহসানের অবৈধ সম্পদ গড়ে তুলেন। তাই তার স্ত্রী ও শ্যালকও পৃথক পৃথক মামলা আদালতে বিচারাধীন রয়েছেন।

 

এমন আরো সংবাদ

Back to top button