বিউটি পারলারের আড়ালে দেহ ব্যবসা করানো সেই নারী কাউন্সিলর গ্রেপ্তার

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের আলোচিত নারী কাউন্সিলর রোকসানা আহমেদ রোজীকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।বিউটি পারলারের আড়ালে কিশোরীদের দিয়ে জোরপূর্বক দেহব্যবসা করানোর অভিযোগে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গতকাল শুক্রবার রাতে রাজধানীর দক্ষিণখান এলাকার একটি বাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। র‌্যাব-১ পোড়াবাড়ী ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল-মামুন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার রাতে রাজধানীর দক্ষিণখান এলাকার একটি বাসায় অভিযান চালায় র‌্যাব-১’র একটি দল। এসময় ওই বাসা থেকে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ১৬,১৭ ও ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের সংরক্ষিত ওয়ার্ডের নারী কাউন্সিলর রোকসানা আহমেদ রোজীকে গ্রেপ্তার করা হয়।

বাসায় আটকে রেখে বিউটি পারলারকর্মী এক কিশোরীকে দিয়ে জোরপূর্বক দেহব্যবসা করানোর অভিযোগে কাউন্সিলর রোকসানা আহমেদ রোজী ও বাড়ির কেয়ারটেকার নুরুল হকসহ আজ্ঞাত আরো দুই-তিন জনের বিরুদ্ধে গত মঙ্গলবার জিএমপি’র বাসন থানায় মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগী কিশোরী।তার আগের দিন সোমবার রাতে পুলিশ বিউটি পারলার থেকে ভুক্তভোগী ওই কিশোরীকে উদ্ধার করেছে।

ভুক্তভোগী কিশোরী জানান, মোটা অংকের বেতনের আশ্বাসে কাউন্সিলর রোকছানা আহমেদ রোজী তাকে পারলারে চাকরি দিয়েছিলেন। পরে তাকে পারলারে কাজের বদলে বিভিন্ন সময়ে পাঠানো হতো দেহ ব্যবসায়। কিশোরী দুই বছর আগে ধর্মান্তরিত হয়ে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন। নেত্রকোনার এই কিশোরীর গাজীপুরে কোনো স্বজন না থাকায় অভিযুক্ত কাউন্সিলরের ভাড়া বাসায় থাকতেন।

কিশোরীর ভাষ্য, চাকরির শুরু থেকেই ওই কাউন্সিলর তাকে জিম্মি করে এ ব্যবসা করে আসছিলেন। অনেকবার সে চেষ্টা করেছে নিজেকে রক্ষা করতে। কিন্তু কাউন্সিল ভয়ভীতি প্রদর্শন করে বিরত রেখেছে।

মামলা দায়েরর পর বাসন থানা পুলিশ নুরুল হককে গ্রেপ্তার করলেও ঘটনার পর থেকেই কাউন্সিলর পলাতক ছিলেন।

 

এমন আরো সংবাদ

Back to top button