টিকা নেওয়া একজন ব্যক্তিরও অঘটনের কথা শুনিনি : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

করোনাভাইরাসের টিকা নেওয়ার পর শারীরিকভাবে খুবই অসুস্থ হয়ে পড়েছেন, এমন একজন ব্যক্তিরও কোনো রকমের অঘটনের কথা শোনা যায়নি বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেন, যে টিকাটি দেওয়া হচ্ছে, সেটি ভালো এবং সহনশীল বলে প্রমাণিত।

আজ বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে টিকাদান কার্যক্রম পরিদর্শন ও সুরক্ষা অ্যাপের কার্যক্রম উদ্বোধনের পর গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা বলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি সিরাম ইনস্টিটিউটের আরও ২০ লাখ টিকা আসছে বলে এসময় জানান তিনি।

জাহিদ মালেক বলেন, ‘গুরুতর অসুস্থ ব্যক্তি, যারা টিকাদান কেন্দ্রে আসতে পারছেন না, তাদের কাছে কীভাবে টিকা পৌঁছানো যায় সে ব্যাপারে চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে। করোনা টিকা পাওয়া থেকে কেউ বঞ্চিত হবে না। সারা দেশে লাখ লাখ মানুষ আনন্দের সঙ্গে উৎসবমুখর পরিবেশে টিকাদান কেন্দ্রে এসে করোনার টিকা নিচ্ছেন।’

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘শুরুর সাতদিনে রেজিস্ট্রেশন ছিল মাত্র ১৫ হাজার, পরবর্তীতে এ সংখ্যা প্রতিদিন বেড়ে লাখ-লাখে পৌঁছেছে। সঙ্গত কারণেই টিকার ডেট পেতে দেরি হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘প্রতিটি টিকা কেন্দ্রে নিবন্ধন সংখ্যা ও টিকাদানের কোটা রয়েছে। সে হিসেবে টিকা সরবরাহ, টিকা প্রদানকারীসহ সার্বিক ব্যবস্থাপনা রয়েছে।’

এসময় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিকালসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাজমুল হাসান পাপন এবং স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ খুরশীদ আলম।

 

এমন আরো সংবাদ

Back to top button