গণতন্ত্র সূচকে আরও উন্নতি বাংলাদেশের

ইকোনমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের (ইআইইউ) বিচারে ২০২০ সালে গণতন্ত্র সূচকে আরও চার ধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ। পাঁচটি মানদণ্ডে কোনো দেশের গণতন্ত্র পরিস্থিতি বিচার করে ইআইইউ আজ বুধবার এ প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

এবার বাংলাদেশের স্কোর ৫ দশমিক ৯৯ স্কোর। এ স্কোরের ভিত্তিতে ১৬৫টি দেশ ও দুটি অঞ্চলের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ৭৬তম। আর গত বছর এই সূচকে বাংলাদেশের স্কোর ছিল ৫ দশমিক ৮৮। সেবার আট ধাপ এগিয়ে বাংলাদেশ উঠে এসেছিল ৮০তম অবস্থানে।

ইকোনমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিট বলছে, গণতন্ত্রের জন্য এই বাজে বছরেও বাংলাদেশ, ভুটান, পাকিস্তানসহ এশিয়ার কিছু দেশের স্কোরে উন্নতি হয়েছে। নির্বাচনী ব্যবস্থা ও বহুদলীয় অবস্থান, সরকারে সক্রিয়তা, রাজনৈতিক অংশগ্রহণ, রাজনৈতিক সংস্কৃতি এবং নাগরিক অধিকার- এই পাঁচ মানদণ্ডে একটি দেশের পরিস্থিতি বিবেচনা করে ১০ ভিত্তিক এই সূচক তৈরি করে ইকোনমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিট।

সব সূচক মিলিয়ে কোনো দেশের গড় স্কোর ৮ এর বেশি হলে সেই দেশে পূর্ণ গণতন্ত্র রয়েছে বলে বিবেচনা করা হয়েছে। স্কোর ৬ থেকে ৮ এর মধ্যে হলে সেখানে ত্রুটিপূর্ণ গণতন্ত্র, ৪ থেকে ৬ এর মধ্যে হলে মিশ্র শাসন এবং ৪ এর নিচে হলে সে দেশে স্বৈরশাসন চলছে বলে ধরা হয়।

এবারের সূচক বলছে, গণতন্ত্রের বিচারে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশের চেয়ে সবচেয়ে ভালো অবস্থায় আছে ভারত। ৬ দশমিক ৬১ স্কোর নিয়ে ভারত আছে তালিকার ৫৩ নম্বরে।

৯ দশমিক ৮১ স্কোর নিয়ে এবারের তালিকার শীর্ষে রয়েছে নরওয়ে। শীর্ষ দশে আরও আছে আইসল্যান্ড, সুইডেন, নিউ জিল্যান্ড, কানাডা, ফিনল্যান্ড, ডেনমার্ক, আয়ারল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও নেদারল্যান্ডস। তালিকার তলানিতে আছে উত্তর কোরিয়া। এছাড়া ডিআর কঙ্গো, সেন্ট্রাল আফ্রিকা, সিরিয়া, চাঁদ, তুর্কমেনিস্তানকেও নিচের দিকে রাখা হয়েছে।

 

এমন আরো সংবাদ

Back to top button