জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে মা-মেয়েকে হত্যা

কক্সবাজার জেলার ঈদগাঁহ থানার ৩ নম্বর ইসলামাবাদ ইউনিয়নের রাবারড্যাম এলাকায় মা-মেয়ে হত্যাকাণ্ডের প্রধান আসামি আবুল কালামকে (৩৬) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। ডেমরা এলাকা থেকে গতকাল রোববার ভোরে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। সিআইডির সহকারী পুলিশ সুপার মো. জিসান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সহকারী পুলিশ সুপার জিসান জানান, গত ১৯ জানুয়ারি জমি-জমা নিয়ে বিরোধের জের ধরে নিজের চাচি রাশেদা বেগমকে (৪০) দা দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকেন আবুল কালাম। এ সময় তার চাচাতো বোন জান্নাতুল ফেরদৌস (১৬) বাধা দিলে তাকেও দায়ের আঘাতে রক্তাক্ত জখম করে পালিয়ে যান আবুল কালাম। পরে মা-মেয়েকে কাছের হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা দুজনকেই মৃত ঘোষণা করেন।

প্রাথমিক তদন্ত শেষে সিআইডি জানায়, গ্রেপ্তার আসামি সাত বছর মালয়েশিয়ায় ছিলেন। গত ৯ মাস আগে তিনি দেশে ফিরে আসেন। চাচা-চাচির সঙ্গে জমি-জমা নিয়ে বিরোধ হয় তার। এর জের ধরে চাচি ও চাচাতো বোনকে হত্যা করেন তিনি।

সিআইডি আরও জানায়, ঘটনার পর সিআইডি ছায়া তদন্ত শুরু করে। অতিরিক্ত বিশেষ পুলিশ সুপার মুক্তা ধর ঘটনার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ ও নিবিড় পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে আসামির সম্ভাব্য লুকিয়ে থাকার সব জায়গায় অভিযান চালায়। এরপর আসামিকে গ্রেপ্তারের জন্য কক্সবাজার ও উখিয়াতে ৪৮ ঘণ্টার সাড়াশি অভিযান পরিচালনা করা হয়। আবুল কালাম পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে কক্সবাজার-উখিয়া হতে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হয়। সিআইডি আসামিকে অনুসরণ করতে থাকে। অতঃপর ঢাকার পাশের ডেমরা এলাকা থেকে শেষরাতে সিআইডি আবুল কালামকে গ্রেপ্তার করতে সমর্থ হয়।

সিআইডি কর্মকর্তারা জানান, আবুল কালামকে গ্রেপ্তারের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করেন। এ ঘটনায় কক্সবাজার জেলার নবগঠিত ঈদগাঁহ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

 

এমন আরো সংবাদ

Back to top button